বিশেষ প্রতিনিধি, টাঙ্গাইলদর্পন.কম :
 
দেলদুয়ারের ফাজিলহাটি থেকে এলাসিনমুখী রাস্তার বেহাল দশা, উন্নয়ন প্রত্যাশী জনগনের আশায় গুরেবালি
 
টাঙ্গাইল জেলার অন্যতম উপজেলা দেলদুয়ার। এর রয়েছে অতীত ঐতিহ্য ও সমৃদ্ধিময় ইতিহাস। রয়েছে পাথরাইল তাঁত শাড়ী, জমিদার বাড়ী, আতিয়া জামে মসজিদ, লাইহাটী হাট এর মতো আরোও অনেক ঐতিহ্য। এদের কথা কমবেশি সবাই শুনেছে, তবে এদের মধ্যেই একটি অবহেলিত গ্রামের নাম ফাজিলহাটির মমিননগর। এই অঞ্চলে প্রায় কয়েক লাখ লোকের বসবাস। কৃষি সমৃদ্ধ এলাকায় প্রতি বছর ধান, গম, লেবু, মাছ ও সবজির ব্যপক চাষ হয় যা এলাকার চাহিদা পূরণ করে বাহিরেও বিক্রি হয়। এছারাও রয়েছে দিনযাপনের নানাবিধ উপকরণ, তবে দুঃখের বিষয় হচ্ছে পরিবহন ও যাতায়াতের রাস্তার অবস্থা খুবই খারাপ।

ফাজিলহাটি মোড় হতে মমিননগর পর্যন্ত রাস্তটি দীর্ঘদিন যাবৎ সংস্কারের অভাবে চলাচলের অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে। ফাজিলহাটি মমিননগর, বটতলা, জানমাহমুদাবাদ, আবাদপুর, নীচপাড়া সহ বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন এলাচিপুর-চরপাড়া, পুটিয়াজানী বাজার সহ দেলদুয়ার উপজেলা বা জেলা শহরের বিভিন্ন অঞ্চলের সাথে যোগাযোগের জন্য এই রাস্তাটি ব্যবহার করে আসছে। দিন দিন এখানে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মানুষের ভীড়, বাড়ছে কর্মব্যাস্ততা।

অপেক্ষাকৃত নীচু এলাকা হওয়ার ফলে বর্ষা মৌসুমে ভোগান্তির সীমা থাকে না। এই রাস্তাটি ফাজিলহাটি ইউনিয়নের বাসিন্দা ছাড়াও এলাসিন ও লাউহাটি ইউনিয়নের একটি বড় অংশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে। এই রাস্তাটি ব্যবহার করে এলাকার কোমলমতি শিক্ষার্থীরাও প্রতিদিন চলাচল করে থাকে। এছাড়াও স্থানীয় বাজার ও দোকানপাটে চলাচলের একমাত্র মাধ্যম এই রাস্তাটি।


 
দেলদুয়ার থেকে লাউহাটি হয়ে মানিকগঞ্জ ও কালামপুর পর্যন্ত রাস্তা পাকা, তবে বেশ কিছু গ্রামের মতো  ফাজিলহাটি ইউনিয়নের মমিননগর গ্রামটির রাস্তার বেহাল দশা দীর্ঘদিন যাবৎ। সামান্য বৃষ্টিতে এই রাস্তায় স্বাভাবিক চলাচল বিঘিœত হয়। এলাকার জনপ্রতিনিধিগন উন্নয়নের আশ্বাস দিলেও তা রয়ে যায় অন্ধকারেই। এই রাস্তার কাজটি একদিন আলোর মুখ দেখবে বলে আশাবাদী এলাকার সাধারণ জনগন, তবে মনে হয় জনপ্রতিনিধিগন কিছুটা বিপরীত মুখী চিন্তাপোষন করে। এলাকার উন্নয়ন এর পরিবর্তে যেন তারা নিজেদের উন্নতি নিয়ে বেশি চিন্তিত। ফলে এলাকার উন্নয়নের পরিবর্তে নিজেদের উন্নয়নকেই বেশি প্রাধান্য দেয়।

এই বিষয়টি নিয়ে কয়েকদিন যাবৎ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে আলাপ-আলোচনা হলেও এতে বিশেষ কোন মহলের দৃষ্টি কাড়তে পারেনি। তাই অনেকেই দুঃখভরা মন নিয়ে নানাবিধ মন্তব্য করেছেন।


Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: