হেরে গিয়ে আইসিসির কাছে নোটিশ পাঠালো ভারত

জার্নাল ডেস্ক

ক্ষণে ক্ষণে বাঁক পরিবর্তন। পেন্ডুলামের মত দুলতে দুলতে থাকা ম্যাচটিতে স্নায়ুর চাপ বাড়ছিল মুহূর্তে মুহূর্তে। উদ্বোধনী জুটিতে ৫০ ওঠার পর যেভাবে ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিল বাংলাদেশ, সেখান থেকে জয় সম্ভব- এটাই ছিল যেন দুঃস্বপ্ন। অবশেষে চরম অনিশ্চয়তার ম্যাচটিকে সম্ভবে পরিণত করলেন অধিনায়ক আকবর আলির অসাধারণ ব্যাটিং।

সত্যিকার একটি ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ করলো পচেফস্ট্রমের সেনওয়েজ পার্কের সমর্থকরা। ক্ষণে ক্ষণে রঙ বদলানোর ম্যাচটিতে সব বিভাগে শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়েই চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ। ভারতের মত শক্তিশালী দলকে ২৩ বল হাতে রেভে ৩ উইকেটের ব্যবধানে হারিয়ে প্রথমবারেরমত যুব বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ।

তবে বাংলাদেশ জয়ের পর মাঠে কিছু একটা হয়েছিল সেটা বোঝা যাচ্ছিল। তবে ঠিক কী হয়েছে, তা টিভি ক্যামেরায় দেখা যায়নি। তবে খেলা শেষে দুই দলের ক্রিকেটারদের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ে বোঝাই যাচ্ছিল কিছু একটা হয়েছে। সেটা যে বেশি কিছু হয়েছে, ম্যাচ শেষে তাই বললেন, ভারত অনূর্ধ্ব ১৯ দলের অধিনায়ক প্রিয়ম গার্গ। 

বাংলাদেশের অধিনায়ক আকবর আলীও বললেন, যা হয়েছে সেটা হওয়া উচিত নয়। বিশ্বজয়ের পরেও তাই অপ্রিয় প্রশ্ন শুনতে হয়েছে বাংলাদেশ অধিনায়ককে।

ম্যাচ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এক দৌড়ে মাঠের ভেতর ঢুকে পড়েছিলেন বাংলাদেশের সব ক্রিকেটাররা। পিচের আশপাশে থাকা ভারতের ক্রিকেটারদের সঙ্গে তখনই একচোট হয়। ধাক্কাধাক্কি থেকে শুরু করে এমনকি একজনের গায়ে জড়িয়ে থাকা বাংলাদেশের পতাকারও ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্রিকইনফো।

আকবর অবশ্য বললেন, কী হয়েছে সেটা তিনি ঠিকমতো দেখেননি। তবে ভালো কিছু যে হয়নি, সেটা মেনে নিয়েই বলেছেন এ ঘটনা যেন আর না হয়, ‘কী হয়েছে আমি সেটা পরিষ্কারভাবে দেখিনি। এ ব্যাপারে কারও সাথে আমার কথা হয়নি। তবে ফাইনালে অনেক সময় স্নায়ুচাপের জন্য আবেগের প্রকাশটা বেশি হতে পারে। ছেলেরা হয়তো বেশি তেঁতে ছিল। যা হয়েছে, সেটা হওয়া উচিত হয়নি। একজন তরুণ ক্রিকেটার হিসেবে আপনাকে সব পর্যায়ের ক্রিকেটেই প্রতিপক্ষকে সম্মান করতে হবে। একই সঙ্গে খেলাটার প্রতিও সম্মান দেখাতে হবে।’

কী হয়েছে সেটা না বললেও দলের পক্ষ থেকে দুঃখ প্রকাশ করলেন আকবর, ‘ক্রিকেট ভদ্রলোকের খেলা। তাই আমি দলের পক্ষ থেকে দুঃখ প্রকাশ করছি।’

ভারতের অধিনায়ক গার্গের কাছেও জানতে চাওয়া হয়েছিল এ নিয়ে। তিনি বিস্তারিত না বললেও বাংলাদেশ দলের দিকেই আঙুল দেখালেন, ‘দেখুন, খেলার হারজিত আছেই। আমরা পরাজয়টা সহজভাবে মেনে নিয়েছিলাম। কিন্তু ওদের প্রতিক্রিয়াটা খুবই অশোভন ছিল। আমার মনে হয় এরকম কিছু হওয়া ঠিক হয়নি। যাই হোক, যা হওয়ার তা হয়ে গেছে।’

তবে ঘটনাটা চাপা থাকছে না। আইসিসি এর মধ্যেই সেটি জেনেছে, তদন্তও শুরু করেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু না বললেও কেউ দোষী হলে ব্যবস্থা নিতে পারে বলেও জানিয়েছে। ভারতের টিম ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে আইসিসির কাছে এ ব্যাপারে নোটিশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্রিকইনফো।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে যুব বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছিল বাংলাদেশ। শিরোপা জয়ের হট ফেবারিট হয়েও সেবার দূর থেকেই দেখতে হয়েছিল অন্যদের জয়োৎসব। এবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠতেই স্বপ্নটা আবার ডানা মেলতে শুরু করে। শেষ চারের লড়াইয়ে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনাল নিশ্চিত করেই লক্ষ্য ছিল একটাই—শিরোপা। বাংলাদেশের ক্রিকেটের নতুন এক প্রজন্ম লক্ষ্যটাকে নিজেদের করে নিয়ে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কথাটা জানিয়ে দিল দারুণভাবেই।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেআই

© Bangladesh Journal


from BD-JOURNAL https://www.bd-journal.com/sports/107057/হেরে-গিয়ে-আইসিসির-কাছে-নোটিশ-পাঠালো-ভারত
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: