টাঙ্গাইলদর্পণ নিউজ ডেস্ক :

 
২০২০ ও ২০২১ সালকে ‘মুজিব বর্ষ’ হিসেবে পালনের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

২০২০ ও ২০২১ সালকে ভিন্ন আঙ্গিকে উৎযাপনের ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একদিকে ২০২০ সালে পূর্ণ হবে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মের শত বছর। অন্যদিকে ২০২১ সাল বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর বছর। তাই ২০২০-২১ সালকে মুজিব বর্ষ হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

৬ জুলাই বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের নবনির্মিত অত্যাধুনিক ১০ তলা বিশিষ্ট দলের নিজস্ব কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের যৌথসভায় সূচনা বক্তৃতায় তিনি এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।
শেখ হাসিনা আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। তার দীর্ঘ সংগ্রামের ফলেই অর্জিত হয়েছে এই মহান স্বাধীনতা। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, জীবন দিয়ে হলেও আপনাদের ঋণ আমি শোধ করে যাব। সপরিবারে জীবন দিয়ে তিনি আমাদের ঋণী করে গেছেন। সেই ঋণ কিছুটা হলেও শোধ করতে হবে। এ জন্য বছরব্যাপী নানা কর্মসূচির মাধ্যমে জাঁকজমকভাবে বঙ্গবন্ধু জন্ম শতবার্ষিকী পালন করা হবে। বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে। বিভাগ, জেলা ও ওয়ার্ড পর্যায় পর্যন্ত জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করা হবে।
প্রসঙ্গত, ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম নেন শেখ মুজিবুর রহমান। কালক্রমে তার হাত ধরেই ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চে বিশ্ব মানচিত্রে নতুন দেশ হিসেবে স্থান করে নেয় বাংলাদেশ।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: