আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সৎ ভাইকে হত্যায় জড়িত সন্দেহে সেদেশের এক নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। মালয়েশিয়ায় কিম জং উনের ভাই হত্যার পর এই প্রথম উত্তর কোরিয়ার কোনো নাগরিককে গ্রেফতার করা হলো। 

মালয়েশিয়ার পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। মালয়েশিয়ায় গ্রফতারকৃত ওই উত্তর কোরীয় নাগরিকের নাম রি জং চল (৪৬)। এর আগে হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ইন্দোনেশিয়ার এক নারী এবং ভিয়েতনামের পার্সপোর্টসহ মালয়েশিয়ার এক পুরুষ ও এক নারীকে গ্রেফতার করা হয়।
 
পুলিশের ধারণা, কুয়ালালামপুর থেকে ম্যাকাও যাওয়ার অপেক্ষার সময় বিমানবন্দরে কিম জং ন্যামের মুখে বিষ স্প্রে করা হয়েছিল। মালয়েশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী আহমদ জাহিদ হামিদি বিমানবন্দরে নিহত ব্যক্তির পরিচয় বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, কিম চল নামের ভ্রমণের অপেক্ষা থাকা ব্যক্তিই ছিলেন কিম জং ন্যাম। মালয়েশিয়ার পুলিশ বলছে, রাজধানী কুয়ালালামপুরের কাছের সেলানগরে শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে সন্দেহভাজন উত্তর কোরীয় নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

গত সোমবার সকালে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সৎ ভাইকে বিষ প্রয়োগে হত্যা করা হয় বলে জানায় মালয়েশিয়ার সরকার।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বলছে, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিমের একনায়কতান্ত্রিক ক্ষমতার কট্টর সমালোচক ছিলেন সৎ ভাই ন্যাম। ভাইকে হত্যায় উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন গুপ্তঘাতক নিয়োগ করেছিলেন।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: