স্পোর্টস ডেস্ক : চারবারের ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়। ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে জিতেছেন সবকিছুই। তবে আর্জেন্টিনার হয়ে হিসাবের খাতাটা শূন্যই। তারপরও গত এক বছরে বৈশ্বিক শিরোপার খুব কাছাকাছি চলে গিয়েছিলেন। কিন্তু তীরে এসে তরী ডুবেছে।

ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে হার। কিছুদিন আগে শেষ হওয়া কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির সঙ্গে টাইব্রেকারে হেরে যাওয়ার দুঃস্বপ্ন। সমালোচনা ধেয়ে আসছে লিওনেল মেসির দিকে। ‘ওকে দিয়ে কিছু হবে না, এখনই বিদায় নাও’ এমন নানা কটুক্তি ক্ষত-বিক্ষত করছে মেসির হৃদয়।

আর্জেন্টিনার পাঁড় সমর্থকতো বটেই, কিছুদিন আগে আকারে ইঙ্গিতে দিয়েগো ম্যারাডোনাও অদৃশ্য চাবুক কষেছিলেন মেসির পিঠে। এই যখন অবস্থা। তখন আগাম সতর্কবার্তা নিয়ে হাজির হয়েছেন আর্জেন্টিনার বাস্কেটবল কিংবদন্তী মানু জিনোবিলি। তিনি বলেছেন, ‘যেভাবে মেসিকে সমালোচনা করা হচ্ছে, তাতে করে ভয়াবহ পরিণতি হতে পারে। সমালোচনার প্রভাবে মেসি দ্রুতই বীতশ্রদ্ধ, ত্যক্ত-বিরক্ত হয়ে পড়তে পারে, নিজের ভালোর জন্য আর্জেন্টিনার হয়ে খেলাও ছেড়ে দিতে পারে সে, তখন কী হবে?’

চারবারের এনবিএ চ্যাম্পিয়ন জিনোবিলি। যিনি আর্জেন্টাইন ক্রীড়া জগতে মেসির প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বীই। তবে কোপা আমেরিকা ফাইনালে হারার পর মেসির প্রতি ভক্তদের সমালোচনা যেন মেনে নিতে পারছেন না তিনি।

রেডিও মেট্রোকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে সবাইকে সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেছেন, ‘মেসি বলতে গেলে একজন দৈত্যই, যে আমাদেরকে দুটি টুর্নামেন্টের ফাইনালে তুলতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে’।

তিনি আরও বলেন, ‘তবে এটাই সত্যি। আর্জেন্টিনার ক্রীড়া জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্রকে তীব্রতার সঙ্গে সমালোচনা করা হচেছ। একদিন সে বিগড়ে যেতে পারে। আর সমালোচকদের উদ্দেশ্যে মেসি তখন বলে উঠতে পারে, গো টু হেল (জাহান্নামে যাও)’।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: