বিভাস কৃষ্ণ চৌধুরী : টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার আনোহলা ইউনিয়নে সাটশৈলা গ্রামে লম্পট মনিরের লালসার শিকার এক প্রতিবন্ধি (২৪) ৭ মাসের অন্তঃসত্তা ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। প্রতিবন্ধির অন্তঃসত্তার খবর শুনে ঘাটাইল থানা পুলিশ গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওসি (তদন্ত) গোলাম মোস্তফার নেতৃত্বে পুলিশ ওই প্রতিবন্ধির বাড়িতে যায়। অধিকতর তদন্তের স্বার্থে পুলিশ ওই অন্তঃসত্তা ও তার মাকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মামলা গ্রহণ করেন।

ঘাটাইল থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা জানান, প্রতিবন্ধি পরিবার নিরীহ হওয়ায় প্রভাবশালীদের ভয়ে কাউকে এ বিষয়ে জানাতে সাহস পায়নি এবং একটি অসমর্থিত সূত্রে জানা যায়, এলাকার কিছু সংখ্যক মাতাব্বর থানায় মামলা না করার পরমর্শ দিয়ে আপোষ মিমাংশার অপচেষ্ঠায় লিপ্ত ছিল ।

জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলার সাটশৈলা গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে লম্পট মনিরের বাড়িতে ওই প্রতিবন্ধি রাত যাপন করত। লম্পট মনির বিভিন্ন সময় তাকে বিয়ের প্রলোভনে জোরপুর্বক ধর্ষণ করলে ওই প্রতিবন্ধি অন্তঃসত্তা হয়ে পড়ে। লম্পট মনির প্রতিবন্ধি পরিবারকে মামলা ও কাউকে কিছু না বলার  জন্য ভয়ভীতি দেখায়। মনিরের ভয়ে ওই প্রতিবন্ধি কাউকে বলেনি। এ ঘটনায় এলাকার কিছু অসাধু মাতাব্বররা টাকার বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার অপপ্রচেষ্ঠা করেছিল।

লম্পট মনির ইতিপূর্বে তার নিজ বড় ভাইয়ের বউকে পালিয়ে নিয়ে বিয়ে করে। এলাকাবাসী এই ঘটনার দোষী লম্পট মনিরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: