ভাটার মুখে 'মোদি ঢেউ'

আন্তর্জাতিক

ভারতে ২০১৪ সাল নাগাদ দেশ জুড়ে আছড়ে পড়েছিল মোদি ঢেউ। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ভাটা পড়তে চলেছে সেই ঢেউয়ে। কেননা গত দু'বছরে ৭ রাজ্যে হার হয়েছে বিজেপির। তারপরও দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন ঘিরে স্বপ্ন দেখছিল পদ্ম শিবির। কিন্তু মঙ্গলবার চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করার আগেই তাদের সেই স্বপ্ন ভেঙে চুরমার। যদিও এবার তাদের একটাই সান্তনা, গতবারের চেয়ে ৫টি আসনে তারা বেশি জিতেছে।

এবারের দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে কেজরিওয়ালের দল আম আদমি পার্টি (আপ) ৬২টি আসন পেয়ে তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় এসেছে। অন্যদিকে দিল্লি দখলের স্বপ্নে বিভোর মোদির দল পেয়েছে মাত্র ৮টি আসন। যদিও নির্বচানের আগে দিল্লি বিজেপির সভাপতি মনোজ তিওয়ারি ৪৮টি আসনে জয়ের প্রত্যাশা করেছিলেন এবং শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ক্ষমতায় আসবেন বলে আশাবাদীও ছিলেন। কিন্তু দিল্লিতে বিজেপির মন ভেঙে দিয়ে ফের ক্ষমতায় এসেছে আম আদমি পার্টি। দিল্লিসহ ভারতের ১২টি রাজ্যে এখনও সরকারে রয়েছে বিজেপি বিরোধী দলগুলি। বিজেপির নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) সরকার রয়েছে অন্য ১৬ টি রাজ্যে। দেশের মোট জনসংখ্যার ৪২ শতাংশ মানুষ এই রাজ্যগুলিতে বাস করে।

কংগ্রেস নিজে বা অন্য দলের সঙ্গে জোট বেঁধে মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, পঞ্জাব, পুদুচেরিতে ক্ষমতায় রয়েছে। ডিসেম্বর ঝাড়খণ্ডেও সরকার গঠনের পরে কংগ্রেসের বর্তমানে মোট ৭টি রাজ্যে সরকার রয়েছে। দিল্লিতে টানা তিন মেয়াদে দিল্লি শাসন করছেন কেজরিওয়াল। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে শাসন ক্ষমতায় রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস, কেরালায় সিপিআই (এম) নেতৃত্বাধীন জোট, অন্ধ্রপ্রদেশে ওয়াইএসআর কংগ্রেস, উড়িশ্যায় বিজেডি এবং তেলেঙ্গানায় ক্ষমতায় রয়েছে টিআরএস।

আর একটি রাজ্য হ'ল তামিলনাড়ু, যেখানে বিজেপি এআইএডিএমকে-কে সঙ্গে নিয়ে লোকসভা নির্বাচনে লড়েছিল, কিন্তু সে রাজ্যে তাদের দলের কোনও বিধায়ক নেই। সুতরাং, ওই রাজ্যেও ক্ষমতার অংশীদার নয় গেরুয়া শিবির।

অথচ ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত অনেকটাই ভাল অবস্থানে ছিল এনডিএ। বিজেপি এবং তার জোটশক্তির হাতে ১৯টি রাজ্য ছিল। তার এক বছর পরে, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ের মতো তিনটি রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতা হারিয়েছে। ওই রাজ্যগুলিতে এখন কংগ্রেস সরকার রয়েছে। ওদিকে চতুর্থ রাজ্য অন্ধ্রপ্রদেশ, যেখানে বিজেপি-টিডিপি জোট সরকার ছিল, কিন্তু ২০১৮ সালের মার্চ মাসে সেখানে টিডিপি-বিজেপি জোট ভেঙে যায়। ২০১৯ সালে সেখানে বিধানসভা নির্বাচনে জিতে সরকার গঠন করেছে ওয়াইএসআর কংগ্রেস।

পঞ্চম রাজ্য মহারাষ্ট্র, যেখানে শিবসেনা নির্বাচনের পরে এনডিএ-র সঙ্গে ত্যাগ করে কংগ্রেস-এনসিপিকে সঙ্গে নিয়ে সরকার গঠন করেছে। শেষ আশা ছিল দিল্লি, কিন্তু রাজধানীর মানুষ আরও একবার বিজেপিকে হতাশ করল। ফলে মোদি ঢেউযে অনেকটাই দুর্বল হয়ে পড়েছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

এমএ/

© Bangladesh Journal


from BD-JOURNAL https://www.bd-journal.com/international/107314/ভাটার-মুখে-মোদি-ঢেউ
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: