ঋত্বিক ঘটকের পৈত্রিক ভিটায় ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক

কালজয়ী চলচ্চিত্রকার ঋত্বিক ঘটকের পৈত্রিক ভিটা পরিদর্শন করেছেন রাজশাহীর ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জিব কুমার ভাটি।

বুধবার দুপুরে রাজশাহী নগরীর মিয়াপাড়া এলাকায় ঋত্বিক ঘটকের পৈত্রিক ভিটায় যান তিনি। এ সময় তিনি সবকিছু ঘুরে দেখেন।

ঋত্বিক ঘটকের পৈত্রিক ভিটায় বর্তমানে রাজশাহী হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল। ঋত্বিক ঘটকের স্মৃতি বিজড়িত কয়েক ঘর এখনও আছে। আরেক পাশে গড়ে উঠেছে আধুনিক ভবন। এরশাদ সরকারের আমলে এনিমি প্রপার্টি হিসেবে বাড়িটি কলেজের কাছে স্থানান্তর করা হয়।

ইতোমধ্যে বাড়ির অনেকটা অংশ ভেঙে ফেলা হয়েছে। সম্প্রতি কলেজের সাইকেল গ্যারেজ তৈরির জন্য ভেঙে ফেলা হচ্ছিল আরও কিছু অংশ। এরপরই প্রতিবাদ শুরু করেন রাজশাহীর সংস্কৃতি প্রেমীরা। অবিলম্বে ভাঙার কাজ বন্ধের দাবি জানিয়ে তারা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেন।

রাজশাহী এবং ঢাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। ওপর বাংলা থেকেও প্রতিবাদ আসতে থাকে। ১২ জন চলচ্চিত্র পরিচালক বিষয়টি নিয়ে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন। এরপরই প্রত্মতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রাজশাহীর জেলা প্রশাসককে কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন।

নির্দেশনা মোতাবেক বর্তমানে কাজ বন্ধ। প্রত্মতত্ত্ব অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জমিটির মাপজোখ করছেন। এরই মধ্যে ঋত্বিক ঘটকের পৈত্রিক ভিটা পরিদর্শনে গেলেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার। এ সময় ঋত্বিক ঘটক ফিল্ম সোসাইটির সভাপতি ডা. এফএমএ জাহিদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি সাজ্জাদ বকুল এবং হোমিওপ্যাথিক কলেজের অধ্যক্ষ আনিসুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার তাদের কাছে সবকিছু শোনেন।

তবে এটি বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে সাংবাদিকদের কাছে কোনো মন্তব্য করেননি সঞ্জিব কুমার ভাটি। রাজশাহীর সাংষ্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা এখন হোমিওপ্যাথিক মেডিক‌্যাল কলেজ ও হাসপাতালকে অন্যত্র সরিয়ে ঋত্বিক ঘটকের পৈত্রিক ভিটাকে জাদুঘর এবং চলচ্চিত্র কেন্দ্র করার দাবি তুলেছেন।

তারা বলছেন, এই বাড়িতে থেকে ঋত্বিক ঘটক রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল ও রাজশাহী কলেজে পড়াশোনা করেছেন। কথা সাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে নাট্যচর্চাও করেছেন এই বাড়িতে থেকে। সেসময় রাজশাহীতে ‘অভিধারা’ নামের এক পত্রিকা সম্পাদনা করতেন তিনি। ঋত্বিক ঘটকের স্মৃতিবিজড়িত এই বাড়িটি নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে এটা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।


রাজশাহী/তানজিমুল/বুলাকী



from Risingbd Bangla News https://ift.tt/35grtmK
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: