মাছের বদলে প্লাস্টিক তুলছেন জেলেরা

ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে গ্রিসের রয়েছে সবচেয়ে বড় মাছ ধরার বহর। সেখানকার জেলেরা ‘ফিসিং ফর লেটার’ নামের এক প্রকল্পের আওতায় এজিয়ান সমুদ্র জঞ্জালমুক্ত করছেন।

ফিচার ডেস্কৎ

ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে গ্রিসের রয়েছে সবচেয়ে বড় মাছ ধরার বহর। সেখানকার জেলেরা ‘ফিসিং ফর লেটার’ নামের এক প্রকল্পের আওতায় এজিয়ান সমুদ্র জঞ্জালমুক্ত করছেন।

‘ফিশিং ফর লেটার’ প্রকল্পের সঙ্গে সম্পৃক্তরা সমুদ্র থেকে তোলা প্লাস্টিক এবং অন্যান্য বর্জ্যের হিসেব রাখেন। বর্তমানে গ্রিসের উত্তরাঞ্চলে এই প্রকল্প চলছে।

সমুদ্রে জমা হওয়া জঞ্জাল সাফ করতে ‘ফিশিং ফর লেটার’ প্রকল্পের আওতায় গ্রিসের জেলেদের ব্যবহার করা হচ্ছে। অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর অবধি এই প্রকল্প পরিচালনা করা হয়।

প্রকল্পের আওতায় অক্টোবর থেকে এখন অবধি এই জেলার এজিয়ান সমুদ্রের তাদের অংশ থেকে দেড় টন আবর্জনা সাফ করেছে। প্লাস্টিক বর্জ্য সমুদ্র থেকে সংগ্রহ করতে কাভালা এবং থেসালোনিকি বন্দরের আটটি ট্রলার ব্যবহার করা হচ্ছে।

‘ফিশিং ফর লেটার’ প্রকল্পের আওতায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনার প্রচলিত চর্চায় পরিবর্তন আনার পাশাপাশি সমুদ্রের তলদেশে জমে থাকা প্লাস্টিক পরিষ্কার করার চেষ্টা করা হচ্ছে। পাশাপাশি এই বিষয়ে মৎস শিল্প সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিও প্রকল্পটির লক্ষ্য।

সমুদ্রতলের একটি বড় অংশ এখন প্লাস্টিক এবং অন্যান্য বর্জ্যে ঢেকে আছে। কখনো কখনো ভাঙা চেয়ারের মতো বড় প্লাস্টিক বর্জ্যেরও সন্ধান মেলে সেখানে। এরকম বর্জ্য সামুদ্রিক জীবদের উপর কেমন প্রভাব ফেলছে তা বুঝতে গবেষণা করছেন গবেষকরা।

‘ফিশিং ফর লেটার’-এর প্রধান সমুদ্র বিজ্ঞানী ক্রিস্টিনা কনটাক্সি জেলেদের জালে ধরা পড়া একটি প্লাস্টিক ব্যাগ দেখছেন। এমন ব্যাগ, বোতল আর ক্যানই সমুদ্রে বেশি পাওয়া যায়। যেসব অঞ্চলে পর্যটক বেশি, সেসব অঞ্চলে এমন আবর্জনাও বেশি থাকে।

মাছ থেকে প্লাস্টিক আলাদা করার পর সেগুলো প্রকল্পের দেয়া বড় ব্যাগে ভরা হয়। এরপর মূল ভূখণ্ডে ফিরিয়ে এনে সেগুলো পরিবেশবান্ধব উপায়ে নষ্ট করা হয়।

গ্রিসে মৎসজীবীর সংখ্যা দশ হাজারের মতো। তারা বছরে গড়ে সত্তর হাজার টনের মতো মাছ ধরেন।

‘ফিশিং ফর লেটার’ প্রকল্পের সঙ্গে সম্পৃক্তরা সমুদ্র থেকে তোলা প্লাস্টিক এবং অন্যান্য বর্জ্যের হিসেব রাখেন। বর্তমানে গ্রিসের উত্তরাঞ্চলে এই প্রকল্প চলছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

© Bangladesh Journal


from BD-JOURNAL https://www.bd-journal.com/special-report/97684/মাছের-বদলে-প্লাস্টিক-তুলছেন-জেলেরা
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: