আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :
 
লিমায় হঠাৎ যাত্রীবাহী বাসে আগুন, নিহত ২০
 
পেরুর রাজধানী লিমায় এক যাত্রীবাহী দোতলা বাসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও আটজন। মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রোববার যাত্রীবাহী বাসটি পেরুর উত্তরাঞ্চলীয় শহর চিকলায়োর দিকে যাচ্ছিলো।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ভয়েস অব আমেরিকা জানায়, ঘটনার দিন স্যান মার্টিন ডে পোরেস এলাকায় ফাইয়ো বাস টার্মিনালে থাকা বাসটিতে হঠাৎ করেই এতে আগুন ধরে যায় এবং দ্রুত তা গোটা বাসে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে বাসটিতে আটকা পড়া খুব বেশি মানুষ বেরিয়ে আসতে পারেনি।

বাসের পেছন দিকে প্রথম আগুন ধরে। পরে তা পুরো বাসকে গ্রাস করে নেয়। এ ঘটনায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত এবং আরও আটজন আহত হয়েছেন। আগুনে পুড়ে এক ব্যক্তির স্ত্রী, ছেলেমেয়ে ও নাতি-নাতনিসহ মোট ছয়জন মারা গেছেন।

পরে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে ওই ব্যক্তি জানান, ‘আগুন লাগার পর আমি দৌড়ে বাইরে বেরিয়ে আসি। কিন্তু আমি আমার পরিবারের সদস্যদের রক্ষা করতে পারিনি। স্ত্রী, ছেলেমেয়ে ও নাতিনাতনিসহ পরিবারের ছয়জনই আগুনে পুড়ে মারা গেছে।’

পেরুর সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, এই ঘটনায় যারা মারা গেছে তাদের বেশিরভাগই বাসের উপরের তলায় ছিলেন। আর স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বলেছেন, ওই দোতলা বাসে কোনো অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র ছিলো না।

তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। এসময় বাসটিতে কতজন যাত্রী ছিলো সেটাও জানাতে পারেননি কর্মকর্তারা। তবে ধারণা করা হচ্ছে, বাসটিতে করে জ্বালানি সরবরাহ করার সময়ই এতে আগুন লেগে যায়।

অন্যদিকে লিমার মেয়র জর্জ মুনোজ জানান, ফাইয়ো বাস টার্মিনালে একটি বাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। কর্তৃপক্ষ ওই টার্মিনালটি কয়েক সপ্তাহ আগেই নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। কারণ ওই টার্মিনালটির পাশেই একটি অবৈধ দোকান রয়েছে যেখানে জ্বালানি বিক্রি করা হতো।

আগুন লাগার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত শুরু করেছে পেরু সরকার।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: