রাস্তা নিয়ে বিরোধ! সখীপুরে স্কুলছাত্রীসহ আহত ৬ হাসপাতালে ভর্তি

জুয়েল রানা,সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : 

টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রস্তাবিত রাস্তার জমির ওপর দিয়ে প্রতিপক্ষের নবম শ্রেণির এক ছাত্রী বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে বাধা দেওয়ায় সংঘর্ষে ওই স্কুলছাত্রীসহ উভয়পক্ষের ছয়জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত তিনজনকে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার সাড়াসিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহতরা হলেন- মো. খোকন মিয়া (২৫), ইসমাইল হোসেন (৪০) ও সিদ্দিক হোসেন (৪২)। এদের সবাইকে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সবার বাড়িই উপজেলার সাড়াসিয়া গ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহতরা জানান, প্রতিবেশী সিদ্দিক হোসেনের জমির ওপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণের প্রস্তাব করা হলে সিদ্দিক হোসেন তার জমির ওপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণে রাজি নন। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবেশী ইসমাইলের সঙ্গে বিরোধ চলছে। সকালে ওই প্রস্তাবিত রাস্তা দিয়ে ইসমাইলের মেয়ে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ইরিনা ও ইসমাইলের ভাতিজি নবম শ্রেণিতে পড়–য়া সোনিয়াকে ওই রাস্তা দিয়ে বিদ্যালয়ে যেতে বাধা দেয় সিদ্দিকের স্ত্রী মর্জিনা আক্তার। এক পর্যায়ে মর্জিনা স্কুলছাত্রী সোনিয়াকে লাঠি দিয়ে সজোরে আঘাত করে। খবর পেয়ে সোনিয়ার ফোপাত ভাই খোকন ও তার চাচা ইসমাইল ছুটে এলে সিদ্দিক ও তার ভাতিজা মিলন দৌঁড়ে এসে খোকন ও ইসমাইলকে চাপাতি দিয়ে মাথায় আঘাত (কুপ) করলে তারা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এ সময় উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে সিদ্দিক হোসেনও গুরুতর আহত হন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক আইরিন বিনতে সাত্তার জানান, গুরুতর আহতদের ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সাড়াসিয়া বাসারচালা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কুদ্দুছ বলেন, উভয়পক্ষকে নিয়ে বসে সমঝোতার চেষ্টা চলছে।

সখীপুর থানার ওসি মো. মাকছুদুল আলম বলেন, এ বিষয়ে এখনও কোনো লিখিত পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: