নওগাঁর সাপাহারে বিচারের নামে গৃহবধু ও যুবককে দোররা মারার ঘটনায় বিচারকসহ গ্রেফতার-৩ - Tangail Darpan | Online Bangla Newspaper 24/7 | টাঙ্গাইল দর্পণ-অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টাল ২৪/৭ নওগাঁর সাপাহারে বিচারের নামে গৃহবধু ও যুবককে দোররা মারার ঘটনায় বিচারকসহ গ্রেফতার-৩ - Tangail Darpan | Online Bangla Newspaper 24/7 | টাঙ্গাইল দর্পণ-অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টাল ২৪/৭
মঙ্গলবার, ১৪ জুন, ২০১৬

নওগাঁর সাপাহারে বিচারের নামে গৃহবধু ও যুবককে দোররা মারার ঘটনায় বিচারকসহ গ্রেফতার-৩

গোলাপ খন্দকার (নওগাঁ প্রতিনিধি): নওগাঁর সাপাহার উপজেলার কলমুডাঙ্গা গ্রামে সামাজিক বিচারের নামে শারীরিক নির্যাতন করে এক গৃহবধু ও এক যুবককে ১০১ টি করে বেত্রাঘাত (দোররা) মারার ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত বিচারক সহ ৩ জনকে আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। থানায় দায়েরকৃত এজাহার ও গ্রামবাসী সুত্রে জানা গেছে, কলমুডাঙ্গা গ্রামের নুরজামালের স্ত্রী জোহরা খাতুন ও একই গ্রামের নাজিরুদ্দীনের পুত্র ফারুক এর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। গত চতুর্থ দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের কয়েকদিন আগে ওই গৃহবধু তার প্রেমিক ফারুককে নিয়ে নিজ স্বামীর বাড়ীতে গোপন অভিসারে মিলিত হলে স্বামী নুরজামাল তাদের কে হাতে নাতে আটক করে এবং বিষয়টি জানা জানি হলে নির্বাচনের কারণে তার সামাজিক বিচারকার্য আপাতত বন্ধ থাকে। এর পর ঘটনার বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পর গ্রামের মাতব্বরা বিষয়টিকে পুনরায় জিবীত করে গত পহেলা রমজানের দিন সকাল ১০টায় গ্রামের জৈনক মোজাফ্ফর মিস্ত্রির খলিয়ানে এক সামাজিক বিচার কার্য বসায়। ঐ বিচারে বাদি বিবাদিদ্বয়কে উপস্থিত করে দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা ধরে বিচার কার্য পরিচালনা করার পর বিচারে বিচারকদ্বয়ের সভাপতি একই গ্রামের আব্ব্স আললীর পুত্র ইয়াহিয়া, জমিদার মন্ডলের পুত্র আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম, কাছিম উদ্দীনের পুত্র সাজাহান ও নওসাদের পুত্র মতিউর রহমান সহ প্রায় ৫-৬ জন বিচারক মন্ডলী অপরাধীদের অপরাধের কারণে ১০১টি করে বেত্রাঘাত (দোররা) করার জন্য যৌথভাবে রায় (ফতোয়া) প্রদান করেন সে সাথে তাৎক্ষনিক বিচারকদের সিদ্ধান্ত মতে বিচারের রায় কার্যকর করার জন্য অভিযুক্ত ওই যুবক ফারুক কে বিচারক মতিউর রহমানের পুত্র আনোয়ার ১০১টি তেত্রাঘাত (দোররা)  করে। এর পর বিচারকদের তোপের মুখে গৃহবধুর পিতা তার মেয়েকেও ১০১ টি ত্রোঘাত (দোররা)  করে। এর পর লোক লজ্জার ভয়ে বেত্রাঘাতে আহত গৃহবধু ও আসামী ফারুক অসুস্থ্য থাকার কারণে তাৎক্ষনিক কোথাও কোন অভিযোগ দাখিল করতে না পেরে স্থানীয় সাংবাদিকদের সহযোগীতায় গত সোমবার রাতে সামিজকভাবে বেত্রাঘাতের স্বীকার জোহরা খাতুন সামাজিক বিচারের নামে শারিরীক নির্যাতন করার অভিযোগ এনে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এর পর উক্ত মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ ওই দিনই একই গ্রামের মূল অভিযুক্ত ফারুক হোসেন (৩৭), বিচারক আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম (৬৮) ও নেয়াজ উদ্দীন সরকার (৬৩) কে গ্রেফতার করে।
এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রেজাউল ইসলাম জানান, মামলা দায়েরের পর তিন জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পালাতাক আসামীদের গ্রেফতারের জন্য জোর তৎপরতা চলছে এবং তদন্ত স্বাপেক্ষে অভিযুক্ত সকল আসামীকে গ্রেফতার করা হবে বলেও জানান।

  • Blogger Comments
  • Facebook Comments
Item Reviewed: নওগাঁর সাপাহারে বিচারের নামে গৃহবধু ও যুবককে দোররা মারার ঘটনায় বিচারকসহ গ্রেফতার-৩Rating: 5Reviewed By: Tangaildarpan News
Scroll to Top