টাঙ্গাইলদর্পণডটকম : ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে বসবাসরত অধিবাসীদের সব ধরনের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছে সংসদীয় কমিটি। এসব অধিবাসীদের কাছ থেকে সেবা প্রদানের সব বিল যথাযথভাবে আদায়ের লক্ষ্যে অভিন্ন ইনডেক্স নম্বর চালুর সুপারিশ করা হয়েছে। সংসদ ভবনে বুধবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির নবম বৈঠক এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। কমিটির সদস্য আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট মো. রহমত আলী, সাবের হোসেন চৌধুরী, ফজলে হোসেন বাদশা এবং বেগম রহিমা আকতার বৈঠকে অংশ নেন।
সিটি কর্পোরেশনের বাইরের যে সকল ইউনিয়নগুলোতে অবকাঠামোগত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে সে ইউনিয়নগুলোকে সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত করার সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়াও বৈঠকে সিটি কর্পোরেশনের নামে বাজেট বরাদ্দের অতিরিক্ত কোন প্রকল্প গ্রহণ না করার জন্য মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

বৈঠকে সমবায় অধিদফতরের কার্যক্রম সম্পর্কে আলোচনা হয়। সমবায় অধিদফতরের শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ, সমবায় আন্দোলনকে বেগবান করতে পরবর্তি সভায় একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন উপস্থাপন এবং যে সকল সমবায় সমিতির বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। এছাড়াও রাজধানীর মিরপুরে চিড়িয়াখানা রোডে জাতীয় সমবায় শিল্প সমিতির নামে বরাদ্দকৃত ৫০ কাঠা জায়গার ওপর নির্মিত ১৬তলা ভবনের মালিকানা ডেভলপারকে ৮৪% এবং  সমিতির নামে ১৬%কিভাবে বরাদ্দ করা হয়েছে সে বিষয়ে পরবর্তি সভায় একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন উপস্থাপন করার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব আবদুল মালেক, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব এম এ কাদের সরকার, এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী শ্যামা প্রসাদ অধিকারী, ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খান এবং  বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।


সূত্র : জাগোনিউজ২৪।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: