অর্থনীতি ডেক্স : তৈরি পোশাক শিল্পখাতে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রফতানির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশকে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেবে ডেনমার্ক। একইসঙ্গে দেশের শিল্প-কারখানার কর্মপরিবেশ উন্নয়নে ডেনমার্কের সহায়তা অব্যাহত রাখবে বলে জানিয়েছেন ডেনমার্কের কর্মসংস্থানমন্ত্রী জন নিরগার্ড লেসেন।

ডেনমার্ক সফররত শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সঙ্গে বৈঠককালে ডেনিস কর্মসংস্থানমন্ত্রী এ কথা জানান। মঙ্গলবার কোপেন হেগেনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশে সবুজ শিল্পায়নে ডেনমার্কের সহায়তাসহ দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। এ সময় চলতি বছরের মার্চ মাসে ঢাকায় শুরু হওয়া ‘ডেনমার্ক-বাংলাদেশ কৌশলগত খাতে সহায়তা’ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের বিভিন্ন দিক আলোচনায় স্থান পায়।

বৈঠকে আমির হোসেন আমু বলেন, শিল্প-কারখানায় নিরাপদ কর্মপরিবেশ ও শ্রমিকদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তা বিধানে বাংলাদেশ সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজ করছে।

এ সময় তৈরি পোশাকসহ অন্যান্য শিল্প-কারখানায় নিরাপদ কর্মপরিবেশ, শ্রমিকদের নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য সেবা, ন্যূনতম মজুরিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকার গৃহিত উদ্যোগ সম্পর্কে তুলে ধরেন তিনি।

ডেনিস কর্মসংস্থানমন্ত্রী বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প-কারখানায় নিরাপদ কর্মপরিবেশ, শ্রম অধিকারসহ বিভিন্ন কমপ্লায়েন্স বাস্তবায়নে বাংলাদেশ গৃহিত সাম্প্রতিক উদ্যোগের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, এর ফলে আগামীতে তৈরি পোশাকখাতে বাংলাদেশ দ্রুত রফতানি প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম হবে।

এ সময় বৈঠকে ডেনমার্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবদুল মুহিত এবং বাংলাদেশ নিযুক্ত ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত মিজ. হেন ফাগল এসকেয়ার উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে শিল্পমন্ত্রী ডেনমার্কের বিশ্বখ্যাত ডেইরি শিল্প প্রতিষ্ঠান এরাল ফুডস পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি বাংলাদেশের জনগণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে পুষ্টিকর ডেইরি ফুড সরবরাহের উপায় নিয়ে প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেন।

পরে মন্ত্রী ডেনমার্কের বিখ্যাত সার, পেট্রো-কেমিক্যাল ও জ্বালানি প্রযুক্তি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান হালদার টপসো এর প্রধান কার্যালয় পরিদর্শন করেন।


সূত্র : জাগোনিউজ২৪।
Share To:

Tangail Darpan

Post A Comment: