বিক্ষোভে অচল ঢাকা, শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা - Tangail Darpan | Online Bangla Newspaper 24/7 | টাঙ্গাইল দর্পণ-অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টাল ২৪/৭ বিক্ষোভে অচল ঢাকা, শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা - Tangail Darpan | Online Bangla Newspaper 24/7 | টাঙ্গাইল দর্পণ-অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টাল ২৪/৭
  • শিরোনাম

    শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

    বিক্ষোভে অচল ঢাকা, শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা

    ডেক্স নিউজ : বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফির ওপর সাড়ে সাত শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার দাবিতে রাজধানীর ধানমণ্ডি ২৭ নম্বরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ২০-২৫ জনের একটি গ্রুপ তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় পুলিশ পাশে চুপ করে অবস্থান করছিল। হামলাকারীরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী বলে জানা গেছে। হামলার পর শিক্ষার্থীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে গেলেও আবার তারা সড়ক অবরোধ করে।

    এদিকে ধানমণ্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নূর এ আজম মিয়া হামলার কোনো ঘটনা ঘটেনি জানিয়ে বলেন, শিক্ষার্থীরা নিজেদের মধ্যে ঝামেলা করেছে। এদিকে বুধবার দুপুর ইস্টওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলায় সূত্রপাত হওয়া ভ্যাটবিরোধী আন্দোলন বৃহস্পতিবার সকালে আবার শুরু হয়। রাজধানীর ধানমণ্ডি ২৭ নম্বর, মহাখালী, রামপুরা, বনানী ও মিরপুরের সড়ক অবরোধ করে বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করে। বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সপ্তাহের শেষ দিন রাজধানী ঢাকা পুরোপুরি অচল হয়ে যায়। রাস্তায় গাড়ি না চলায় নগরবাসীকে হেঁটে গন্তব্যে যেতে হয়েছে।

    ছাত্র বিক্ষোভের মুখে বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে জানানো হয় আরোপিত ভ্যাট শিক্ষার্থী নয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে পরিশোধ করতে হবে।

    উত্তরার হাউজ বিল্ডিং এলাকায় শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে বিমানবন্দরমুখী যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। একই অবস্থা চলে বাড্ডামুখী প্রগতি সরণিতে। মহাখালীর ওয়ারলেস গেট এলাকায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে গুলশান-১ নম্বর থেকে আমতলী মোড়ের দিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে বাড্ডা থেকে গুলশানমুখী সড়কে, গুলশান-২ থেকে গুলশান-১ এর আশেপাশের সড়কে এবং মহাখালীর আমতলি ও রেলগেইট এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। রামপুরার আফতাবনগরে ইস্ট-ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে প্রগতি সরণির মেরুল বাড্ডা ও রামপুরা ডিআইটি রোডে যানজট দেখা যায়। প্রগতি সরণির বসুন্ধরা আবাসিক গেইট এলাকায় নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে কোকাকোলা মোড় থেকে নর্দ্দা মোড় পর্যন্ত এবং বিপরীত মুখী পথে কুড়িল বিশ্বরোড থেকে বসুন্ধরা মোড় পর্যন্ত সড়কে অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে। প্রগতি সরণিতে নামতে না পেরে কুড়িল ফ্লাইওভারের দুটি অংশে যানজট দেখা দেয়। ধানমন্ডি ২৭ নম্বরে স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে কারণে মিরপুর সড়কেও দেখা যায় একই পরিস্থিতি।

    এদিকে যানবাহন না থাকার সুযোগ নিয়েছেন কিছু অসাধু রিকশা ও অটোরিকশাচালক। তারা যাত্রীদের কাছ থেকে সচরাচার যে ভাড়া নিতেন বৃহস্পতিবার তার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি ভাড়া দাবি করেন।

    ছোট্ট শিশুকে কোলে দিয়ে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে আছেন বাবা মীর রহমত উল্লাহ। বাস না পেয়ে কয়েকবার সিএনজি অটোরিকশাতে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন তিনি। কিন্তু কয়েকগুণ বেশি ভাড়া চাওয়ায় শেষে তিনি আর যেতে পারেননি।

    মীর রহমত উল্লাহ দ্য রিপোর্টকে বলেন, ‘ছোট শিশুকে নিয়ে অনেকক্ষণ দাঁড়িয়ে আছি। কিন্তু কোনো গাড়ি নেই। সিএনজিচালকরাও অতিরিক্ত ভাড়া দাবি করছে। একদিকে রোদ, অন্যদিকে ভ্যাপসা গরম। চরম অশান্তিতে পড়েছি। দেশটা দিন দিন বসবাসের অনুপযোগী হয়ে যাচ্ছে।’

    অন্যদিকে, বিমানবন্দরগামী রাস্তা বন্ধ থাকায় বিপরীত দিকে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হতে দেখা যায়। কারওয়ান বাজার থেকে প্রায় বনানী পর্যন্ত রাস্তায় স্থবিরতা দেখা দেয়। অনেক যাত্রী ধৈর্যহারা হয়ে হেঁটে গন্তব্যে রওয়ানা দেন। মহাখালী থেকে বিমানবন্দরের উদ্দেশে রওয়ানা দিতে দেখা যায় মো. আমানত নামে এক যাত্রীকে।

    তিনি দ্য রিপোর্টকে বলেন, ‘ভাই গরমের মধ্যে কতক্ষণে আর বাসে বসে থাকা যায়। প্রায় এক ঘণ্টা একই জায়গায় বসে আছি। আর পারছি না। তাই হেঁটে রওয়ানা দিয়েছি।’

    এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মোহাম্মদ মাহবুব দ্য রিপোর্টকে বলেন, ‘মহাখালী-বিমানবন্দর সড়কের চেয়ারম্যান বাড়িতে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয় অব বাংলাদেশ (এআইইউবি) কয়েক শ’ শিক্ষার্থী রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করছেন। এতে উভয় দিকের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।’

    তিনি বলেন, ‘জনগণের ভোগান্তি দূর করতে চালকদের বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছি।’

    বনানী এলাকায় আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এআইইউবি), সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি, নর্দান ইউনিভার্সিটি ও সাউথ এশিয়া ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাস্তায় অবস্থান করে আন্দোলন করেন। স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি, স্টেট ইউনিভার্সিটি, ইউল্যাব, এশিয়া প্যাসিফিক, ইউআইইউ, ড্যাফোডিল ও উত্তরা ইউনির্ভাসিটির শিক্ষার্থীরা ধানমণ্ডির ২৭ নম্বরের রাপা প্লাজার সামনে ও বাংলাদেশ আই হসপিটালের সামনে পৃথক ভাবে আন্দোলন করেন।

    এদিকে সন্ধ্যায় ধানমন্ডি ২৭ নম্বরের রাপা প্লাজার সামনের রাস্তায় আন্দোলনরত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী বৃহস্পতিবারের আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করে শনিবার সকাল ১১টায় সারাদেশে মানববন্ধন এবং রবিবার সকাল ১১টা থেকে একই স্থানে অবস্থান কর্মসূচী দেন। অপরদিকে, বাংলাদেশ আই হসপিটালের সামনের রাস্তায় আন্দোলনরত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবারের আন্দোলন রাত ৮টার দিকে স্থগিত জানিয়ে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে একই স্থানে অবস্থান কর্মসূচী ঘোষণা করেন।
    • Blogger Comments
    • Facebook Comments
    Item Reviewed: বিক্ষোভে অচল ঢাকা, শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা Rating: 5 Reviewed By: Tangaildarpan News
    Scroll to Top